সোমবার, ৩০ জানুয়ারি, ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

ডাইশিড্রোটিক একজিমা: কারণ, উপসর্গ ও চিকিৎসা

জীবন যাপন নভেম্বর ২৭, ২০২২, ০৯:৫৩ পিএম
ডাইশিড্রোটিক একজিমা: কারণ, উপসর্গ ও চিকিৎসা
ডাইশিড্রোটিক একজিমা

ডাইশিড্রোটিক একজিমা যা ডিশিড্রোসিস নামেও পরিচিত, এমন একটি ত্বকের অবস্থা যা হাতের তালুতে বা পায়ের তলায় ফোস্কা সৃষ্টি করে। ডাইশিড্রোটিক একজিমার জন্য এখনও কোন নিরাময় ব্যবস্থা নেই, তবে এটি নিয়ন্ত্রণযোগ্য। ডাইশিড্রোটিক একজিমার মৃদু উপসর্গে, ফোসকাগুলি সাধারণত নিজে থেকেই  চলে যায়।

ডাইশিড্রোটিক একজিমা কী?
ডাইশিড্রোটিক একজিমা হল ত্বকের এমন একটি অবস্থা যা হাত এবং পায়ের নীচে তরল-ভরা ফোস্কা সৃষ্টি করে। এই ফোস্কাগুলি প্রায় তিন সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হয় এবং তীব্র চুলকানি সৃষ্টি করে। একবার ফোস্কাগুলো শুকিয়ে গেলে, জায়গাটা আঁশযুক্ত বা শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। কিছু ক্ষেত্রে, ফোস্কাগুলোর পুনরাবৃত্তি হতে পারে। কখনও কখনও, আগের ফোস্কাগুলি সম্পূর্ণরূপে নিরাময় হয়ে যাওয়ার আগেই এগুলো আবার ফিরে আসে।

ডাইশিড্রোটিক একজিমার উপসর্গ কী?
ডাইশিড্রোসিসের সাথে যুক্ত ফোস্কাগুলি সাধারণত আপনার আঙ্গুলের পাশে এবং তালুতে দেখা যায়। কখনও কখনও আপনার পায়ের তলাও এতে আক্রান্ত হতে পারে। ফোস্কাগুলি সাধারণত আকারে ছোট হয় – একটি সাধারণ পেন্সিলের সীসের প্রস্থাকৃতি প্রায় – এবং জায়গায় জায়গায় অনেকগুলি করে হয়ে থাকে।

আরও গুরুতর ক্ষেত্রে, ছোট ফোস্কাগুলি একত্রিত হয়ে বড় ফোস্কার সৃষ্টি করতে পারে। ডাইশিড্রোসিস দ্বারা আক্রান্ত ত্বক খুব চুলকানিযুক্ত এবং বেদনাদায়ক হতে পারে। একবার ফোসকা শুকিয়ে গেলে এবং ওপরের আস্তরণ উঠে গেলে (যা প্রায় 3 সপ্তাহের মধ্যে ঘটে), অন্তর্নিহিত ত্বক লাল এবং নরম লাগতে পারে।

ডাইশিড্রোসিসের মাস বা বছরব্যাপী মোটামুটি নিয়মিতভাবে পুনরাবৃত্তি হয়।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, ডাইশিড্রোটিক একজিমা প্রায় দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে চলে যায়। এমনকি ফোস্কা চলে যাওয়ার পরেও, নীচের ত্বক কয়েক দিনের জন্য কোমল এবং লাল হতে পারে।

ডাইশিড্রোটিক একজিমা হালকা বা গুরুতর হতে পারে। যদি আপনার পায়ের উপর গুরুতর ভাবে ডাইশিড্রোটিক একজিমা প্রভাব ফেলে তবে আপনি হাঁটার অসুবিধার সম্মুখীন হতে পারেন। গুরুতর মাত্রায় হাতে ফোস্কা পড়ার ঘটনায় আপনার জন্য দৈনন্দিন কাজগুলি করা কঠিন হয়ে যেতে পারে।

যদি আপনি ফোস্কাটি চুলকে ফেলেন, এটি কিন্তু সংক্রামিত হতে পারে এবং এর থেকে ব্যথাও হতে পারে। সংক্রমণের সাধারণ লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে:

* ফোসকায় পুঁজ
* ফোলাভাব
* তীব্র ব্যথা
* কড়া পড়ে যাওয়া

কখন আপনাকে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে? 

আপনি যদি উপরে উল্লিখিত লক্ষণগুলির মধ্যে কোন একটিও লক্ষ্য করেন, অবিলম্বে চিকিৎসকের সহায়তা নিন। ডাইশিড্রোটিক একজিমার মৃদু উপসর্গের ক্ষেত্রে চিকিৎসা করা সহজ। প্রাথমিক অবস্থায় রোগ নির্ণয় করা গেলে তা আপনার নিরাময় প্রক্রিয়া দ্রুত করতে সাহায্য করতে পারে।

রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসক আপনার জন্য সবচেয়ে ভাল কাজ করবে এমন ওষুধ, ক্রিম বা লোশনের নাম লিখে দিতে পারেন।

ডাইশিড্রোটিক একজিমার কারণ কী?

ডাইশিড্রোটিক একজিমার সঠিক কারণ এখনও জানা যায়নি। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন যে এই ফোস্কাগুলি অ্যালার্জির সাথে সম্পর্কিত হতে পারে। আপনার যদি পারিবারিক ইতিহাসে, হে ফিভারের মতো অ্যালার্জি এবং অন্যান্য ধরণের একজিমা থেকে থাকে, তবে আপনার ডাইশিড্রোটিক একজিমা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

নিম্নলিখিত কারণগুলি ডাইশিড্রোটিক একজিমা সৃষ্টি করে বলে মনে করা হয়:

• ভেজা বা ঘর্মাক্ত হাত-পা

• আর্দ্র এবং উষ্ণ আবহাওয়া

• কোবাল্ট, নিকেল এবং ক্রোমিয়ামের মতো নির্দিষ্ট ধাতুর সংস্পর্শে আসা

•এইচআইভি সংক্রমণ

• মরশুমি অ্যালার্জি

• দুর্বল অনাক্রম্যতা শক্তির জন্য কিছু চিকিৎসা

ডাইশিড্রোটিক একজিমার সাথে সম্পর্কিত ঝুঁকির কারণগুলি কী কী?
ডাইশিড্রোটিক একজিমার সাথে সম্পর্কিত ঝুঁকির কারণগুলির মধ্যে রয়েছে:

*  সংবেদনশীল ত্বক
আপনার যদি সংবেদনশীল ত্বক থাকে তবে আপনার ডাইশিড্রোটিক একজিমা হওয়ার ঝুঁকি বেশি। আপনার যদি ফুসকুড়ি হয়ে থাকে তবে এটি ডাইশিড্রোটিক একজিমায় পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা বাড়তে পারে।

*  মানসিক চাপ
ডাইশিড্রোটিক একজিমা সাধারণত শারীরিক বা মানসিক চাপের সময় ঘটার জন্য সুপরিচিত। আপনি যদি সহজেই উদ্বেগের শিকার হয়ে পড়েন, তাহলে আপনার ডাইশিড্রোটিক একজিমা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

*  কিছু বিশেষ ধাতুর সংস্পর্শে আসা 
আপনি যদি এমন একটি শিল্প স্থাপনায় কাজ করেন যেখানে নিকেল এবং কোবাল্টের মতো ধাতুর পরিমাণ বেশি থাকে এবং আপনি এই ধাতুগুলির সংস্পর্শে আসেন  তবে আপনার ডাইশিড্রোটিক একজিমা হওয়ার সম্ভাবনা বাড়তে 

*  এটোপিক ডার্মাটাইটিস
এটোপিক ডার্মাটাইটিস হল ত্বকের একটি চুলকানিযুক্ত প্রদাহ। আপনার যদি এই অবস্থা হয়ে থাকে তবে আপনি ডাইশিড্রোটিক একজিমা হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন।

ডাইশিড্রোটিক একজিমার চিকিৎসা না করা হলে কী জটিলতা দেখা দিতে পারে?

ডাইশিড্রোটিক একজিমা আক্রান্ত কিছু লোকের জন্য, এটি একটা অল্পমাত্রার অসুবিধা। আবার অন্যদের জন্য, চুলকানি এবং ব্যথার তীব্রতা তাদের হাত ও পায়ের ব্যবহার সীমিত করে দিতে পারে। যদি ফোস্কাগুলি নিজে থেকে না সেরে যায় তবে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়তে পারে। এর ফলে পুঁজ-ভরা ফোস্কা এবং তীব্র ব্যথাও হতে পারে।

ডাইশিড্রোটিক একজিমার জন্য কোন প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা আছে কী?

যেহেতু ডাইশিড্রোটিক একজিমার কারণ জানা নেই তাই এটি সম্পূর্ণরূপে প্রতিরোধ করার কোনো উপায় নেই। যাইহোক, তবুকিছু প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা এই অবস্থা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে:

*  মানসিক উদ্বেগের নিয়ন্ত্রণ 
* নিকেল এবং কোবাল্টের মতো কিছু ধাতুর সংস্পর্শ থেকে এড়িয়ে চলা 
* নিয়মিত হাত-পা ময়শ্চারাইজ করুন
* যেখানে প্রয়োজন সেখানে গ্লাভস পরা
* হাত পরিষ্কার করার জন্য হালকা ক্লিনজার এবং গরম জল ব্যবহার করুন

কিভাবে ডাইশিড্রোটিক একজিমা নির্ণয় করা হয়?

ডাক্তার শারীরিকভাবে ত্বক এবং ফোস্কা পরীক্ষা করেই ডাইশিড্রোটিক একজিমা নির্ণয় করতে সক্ষম হবেন। অন্যান্য অনুরূপ ত্বকের অবস্থা নিয়ে সন্দেহ অবসান করার জন্য, ডাক্তার পরীক্ষাগার ভিত্তিক নির্দিষ্ট কিছু পরীক্ষাও করার জন্য বেছে নিতে পারেন।

পরীক্ষাগুলির মধ্যে ত্বকের বায়োপসি অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে, যেখানে ডাক্তার পরীক্ষাগারে বিশ্লেষণের জন্য আপনার ত্বকের একটি ছোট অংশ তুলে সরিয়ে ফেলবেন। এই পরীক্ষাটি ছত্রাক সংক্রমণের মতো ডাইশিড্রোটিক একজিমা হবার সম্ভাব্য কারণগুলিকে বাতিল করতে পারে। 

অ্যালার্জি স্কিন টেস্টিং করা যেতে পারে, যদি ডাক্তার বিশ্বাস করেন যে আপনার ফোসকা ত্বকের অ্যালার্জির কারণে হয়েছে।

ডিশিড্রোটিক একজিমার জন্য উপলব্ধ চিকিত্সা বিকল্প কী কী?

ডাইশিড্রোটিক একজিমার লক্ষণ এবং তীব্রতা সাবধানতার সাথে পরীক্ষা করার পরে, ডাক্তার আপনার জন্য উপযুক্ত চিকিৎসার বিকল্পটি লিখে দিতে পারেন। চিকিৎসার বিকল্পগুলির মধ্যে রয়েছে:

 কর্টিকোস্টেরয়েড
কর্টিকোস্টেরয়েড মলম এবং ক্রিম ফোস্কা কমাতে সাহায্য করতে পারে। কর্টিকোস্টেরয়েড প্রয়োগের পরে, নিরাময় প্রক্রিয়া উন্নত করার জন্য আক্রান্ত স্থানটিকে একটি প্লাস্টিকের মোড়কে মুড়িয়ে রাখা যেতে পারে। কর্টিকোস্টেরয়েডের আরও ভাল শোষণের জন্য আর্দ্র সেঁকেরও ব্যবহার করা যেতে পারে।

ডাইশিড্রোটিক একজিমার গুরুতর ক্ষেত্রে, ওরাল কর্টিকোস্টেরয়েড বড়িগুলি নির্ধারিত হতে পারে।

অনাক্রমতা-দমনকারী মলম
আপনি  যদি স্টেরয়েড ব্যবহার বেশি করতে না চান তবে ডাক্তার অনাক্রমতা-দমনকারী মলম লিখে দিতে পারেন। এই মলমগুলিতে পাইমেক্রোলিমাস এবং ট্যাক্রোলিমাসের মতো ওষুধ রয়েছে যা ফোসকা নিরাময়ে সাহায্য করে।

এই ওষুধগুলি ত্বকের সংক্রমণের বর্ধিত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নিয়ে আসে।

ফটোথেরাপি
যদি অন্যান্য চিকিৎসা প্রতিক্রিয়াশীল না হয়, ডাক্তার ফটোথেরাপি নামে পরিচিত একটি বিকল্প পদ্ধতির পরামর্শ দেন। এটি একটি বিশেষ আলোক থেরাপি যা অতিবেগুনী রশ্মির সংস্পর্শে আসা ও ওষুধের ব্যবহার একত্রিত করে নির্মিত। 

বোটুলিনাম টক্সিন ইনজেকশন
ডাইশিড্রোটিক একজিমার গুরুতর ক্ষেত্রে চিকিৎসার জন্য, ডাক্তার বোটুলিনাম টক্সিন ইনজেকশনের সুপারিশ করতে পারেন।

আপনার যদি হালকা মাত্রার ডাইশিড্রোটিক একজিমা থাকে তবে ডাক্তার উপসর্গগুলি উপশম করতে সাহায্য করার জন্য অ্যান্টিহিস্টামাইনগুলি লিখে দিতে পারেন।

উপসংহার

ডাইশিড্রোটিক একজিমার সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ হল ফোস্কা। যেহেতু এখনও এর কোন নিরাময় নেই, তাই প্রাথমিক অবস্থাতেই রোগ নির্ণয় এবং উপযুক্ত ওষুধ নিরাময়ের প্রক্রিয়াটিকে ত্বরান্বিত করতে সাহায্য করতে পারে। যদি এটির চিকিৎসা না করা হয় তবে ফোস্কাগুলি সংক্রামিত হতে পারে এবং তীব্র ব্যথা হতে পারে। আপনি যদি আপনার হাতের তালু বা পায়ে ফুসকুড়ি বা হালকা ফোসকা লক্ষ্য করেন, অবিলম্বে একজন ডাক্তারের কাছে গিয়ে এটি পরীক্ষা করুন।

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন (FAQs)

১. ডাইশিড্রোটিক একজিমা কি অন্য এলাকায় ছড়িয়ে পড়তে পারে?

মৃদু উপসর্গের ক্ষেত্রে, ত্বকের খুব কম জায়গায় ফোসকা থাকে। গুরুতর ক্ষেত্রে, ফোস্কাগুলি আকারে বড় হতে পারে এবং হাত, পায়ের নীচে এবং অঙ্গগুলিতে ছড়িয়ে যেতে পারে।

২. ডাইশিড্রোটিক একজিমা ফোস্কাগুলি ফাটিয়ে দিলে এটি কি ছড়িয়ে পড়বে?

ইচ্ছাকৃতভাবে ফোস্কাগুলি ফাটিয়ে দিলে এটি আরও খারাপ করতে পারে। এটি ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের কারণ হতে পারে এবং পুঁজ দিয়ে ফোসকা পূরণ হয়ে যেতে পারে। কিন্তু কখনও কখনও, ফোস্কাগুলি নিজে থেকেই ফেটে যেতে পারে, যা আবার স্বস্তি প্রদান করতে পারে।

৩. সূর্যের আলো কি ডাইশিড্রোটিক একজিমার জন্য ভাল?

ভিটামিন ডি সরবরাহের পাশাপাশি, সূর্যালোকের অন্যান্য ভালো ফলও রয়েছে। গবেষণাগুলিতে দেখা গেছে যে ইউভি বিকিরণের সংস্পর্শে এলে ত্বকের প্রদাহ, চুলকানি, শুষ্কতা এবং ডাইশিড্রোটিক একজিমা দ্বারা সৃষ্ট ফুসকুড়ি কমাতে সাহায্য করতে পারে।

সূত্র: আস্ক অ্যাপোলো

আরও পড়ুন

Side banner