বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

অল্প খরচে ঘর সাজানোর ৫টি দারুণ আইডিয়া

জীবন যাপন ডিসেম্বর ১৫, ২০২৩, ০৩:৫৮ পিএম
অল্প খরচে ঘর সাজানোর ৫টি দারুণ আইডিয়া

সাজানো-গোছানো ঘর আমরা কে না ভালোবাসি! সারাদিন কাজ শেষে যখন আমরা ঘরে ফিরি, তখন পরিপাটি ঘর মনে অন্যরকম এক প্রশান্তি এনে দেয়। সাধারণত, ঘর সাজানো বেশ ব্যয়বহুল। ফার্নিচার থেকে শুরু করে দেয়ালে টাঙানো ছবি—সবকিছু দামি হয়ে থাকে। কিন্তু কম খরচেও ঘর সাজানো যায়। সেজন্য অবলম্বন করা যেতে পরে কিছু কৌশল। চলুন তাহলে সেগুলো জেনে নেওয়া যাক:

১. আসবাবের স্থান পরিবর্তন

ঘরের সাজে পরিবর্তন নিয়ে আসার সবচেয়ে সহজ ও সাশ্রয়ী পদ্ধতি হলো আসবাবপত্রের অবস্থান পরিবর্তন করা। এতে কোনো অর্থের খরচ হয় না। ঘরে নতুনত্ব আনতে মাঝেমধ্যেই আসবাবপত্রের জায়গা পরিবর্তন করা দরকার। খাটের দিক থেকে শুরু করে সোফা, সাইড টেবিল, শোকেস এবং ঘরের অন্যান্য আসবাবের স্থান পরিবর্তন করুন। তবে প্রয়োজন ছাড়া ঘরে বাড়তি ফার্নিচার না রাখাই ভালো।

২. সবুজের ছোঁয়া

ঘরে সবুজের ছোঁয়া আনুন। বর্তমানে ঘরের ভেতরের সাজসজ্জার জন্য অনেক গাছ পাওয়া যায়। আপনি তেমন কয়েকটি গাছ এনে খাটের পাশে, ওয়্যারড্রবের উপর, টেবিলের উপর অথবা বুকশেলফের উপর রেখে দিতে পারেন। এতে ঘরের পরিবেশে নতুনত্ব আসবে। এজন্য আপনাকে খুব বেশি অর্থ ব্যয় করতে হবে না।

৩. আলোর খেলা

একটি ঘরের সাজে আলোর ভূমিকা অনেক। প্রাকৃতিক আলোর পাশাপাশি কৃত্রিম আলোর সাহায্যে ঘরের সাজের পরিবর্তন আনুন। এর জন্য আপনি রঙ-বেরঙের লাইট ব্যবহার করতে পারেন। হস্তশিল্পের দোকানগুলোতে বেশ কম দামেই বাহারি ধরনের ল্যাম্প ও ঝাড়বাতি পাওয়া যায়। এগুলো ঘরের কোনে, টেবিলের ওপর ও ঘরের ছাদে ঝুলিয়ে সাজিয়ে রাখতে পারেন। এর ফলে ঘরের সৌন্দর্য কয়েকগুণ বেড়ে যাবে। আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী নিয়ে নেবেন। এগুলোর দাম খুব বেশি পরবে না। আপনার পছন্দের পণ্যটি ২০০-১০০০ টাকার মধ্যে কিনে নিতে পারবেন।

৪. দেয়ালের সাজ

দেয়ালের সাজ পুরো ঘরের চেহারা নিমিষেই বদলে দিতে পারে। এর জন্য প্রথমেই আপনি রঙের পরিবর্তন করতে পারেন। আপনার পছন্দ অনুযায়ী রঙ বাছাই করে দেয়ালকে নতুনরূপে সাজিয়ে নিন। এরপর সুন্দর সুন্দর ফটোফ্রেম, পেইন্টিং, ওয়াল হ্যাংগিং, ওয়ালম্যাট দিয়ে সাজিয়ে ঘরকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন। আর এগুলো ১০০-৭০০ টাকার মধ্যেই কিনতে পারবেন।

৫. ফুলের সাজ

ফুল কে না ভালোবাসে! আর সেই পছন্দের ফুল যদি কাজে লাগে ঘরের সৌন্দর্য বাড়াতে তাহলে তো কথাই নেই। যুগ যুগ ধরে নারীরা সুগন্ধি ফুল দিয়ে ঘর সাজিয়ে এসেছেন। এখনও যে তার খুব বেশি পরিবর্তন হয়েছে তা কিন্তু নয়। তবে হ্যাঁ, ফুল রাখার ধরণে বদল এসেছে। আগে গোলটেবিল নয়ত ড্রেসিং টেবিলের এককোণে ফুলদানি রাখা হতো। আর এখন সেন্টার টেবিল বা কর্নার টেবিলে আধুনিক ডিজাইনের ফ্লাওয়ার ভাসের মধ্যে সাজানো হয় এই ফুল। ঘরের কোণায় বা সিঁড়ির ল্যান্ডিংয়ে আর্টিফিশিয়াল ফুলের ঝাড় টেরাকোটার পটে ভালো মানায়। এতে ঘর দেখতে ভালো লাগে এবং মনও ভালো হয়ে যায়।

Side banner