বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

কোন ব্যাংকের এমডির বেতন কত?

জীবন যাপন নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১২:০৬ পিএম
কোন ব্যাংকের এমডির বেতন কত?

ব্যাংকের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের বেতন ভাতাদি সম্পর্কে অনেকের আগ্রহ রয়েছে – ব্যাংকের একজন ম্যানেজার কোন গ্রেডে বেতন পায় চলুন জেনে নিই – বাংলাদেশ ব্যাংক বেতন স্কেল ২০২২

সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকের বেতন কি কাছাকাছি? না। আকাশ পাতাল ব্যবধান। নিচের গ্রেডের বেতনভূক্ত কর্মকর্তাদের বেতন ভাতাদি নিকটতম হলেও উর্ধ্ব গ্রেডের কর্মকর্তা বা ব্যবস্থাপনা লেবেলের উর্ধ্বতনদের বেতন ভাতাদি আকাশচুম্বী বলতে পারেন।

ব্যাংকগুলোর শীর্ষপদ ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) বা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও)। ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের তিনিই সর্বোচ্চ ব্যক্তি। তার নেতৃত্বেই পরিচালিত হয় ব্যাংক। তাই তার বেতন ও অন্য সুযোগ-সুবিধা সবার থেকে বেশি। ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বেতন পান ইস্টার্ন ব্যাংকের এমডি। আর সবচেয়ে কমবেতন পান রাষ্ট্রায়ত্ত রূপালী ব্যাংকের এমডি। দেশের সরকারি ও বেসরকারি ৪৭টি ব্যাংকের এমডিদের বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা নিয়ে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছেন হারুন-অর-রশিদ ষ গোলাম রাব্বানী

বড় ব্যাংকের এমডির বড় বেতন- স্বাভাবিক নিয়মে এটিই হওয়ার কথা। কিন্তু বড় ব্যাংকের এমডির বেতন বড় নয়, বরং কম। ছোট ব্যাংকের এমডিরই বেতন বড়। বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর এমডিদের বেতন নিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তৈরি এক প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। দেশে এখন পর্যন্ত সরকারি খাতের ব্যাংকগুলোই বড়। বেসরকারি ব্যাংকের মধ্যে ইসলামী ব্যাংক সবচেয়ে বড়। এসব বড় ব্যাংকের এমডিদের বেতন কম। আবার বেসরকারি খাতের ছোট ব্যাংকগুলোর এমডিদের বেতন অনেক বেশি।

গত বছর ব্যাংকগুলো এমডিদের পেছনে বেতন-ভাতা, বোনাস ও অন্যান্য সুবিধার আর্থিক মূল্যের ভিত্তিতে যে খরচ করেছে তার ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে এ প্রতিবেদনটি। নিয়মিত এমডি না থাকায়, ভারপ্রাপ্ত এমডি দায়িত্ব পালন করায় অনেক ব্যাংকের এমডির খরচ কম হয়েছে। বর্তমানে সবচেয়ে বেশি বেতনের এমডি রয়েছেন বেসরকারি খাতের ইস্টার্ন ব্যাংকে। ব্যাংকটি গত বছর প্রতি মাসে গড়ে এমডির পেছনে খরচ করেছে ১৫ লাখ টাকা। আগের বছর ছিল ১৩ লাখ ৪৬ হাজার টাকা।

অর্থমন্ত্রণালয় কর্তৃক এমডিদের বেতন নির্ধারিত হয়। বেসরকারি ব্যাংকের ক্ষেত্রে এমনটি নয়। সরকারি ব্যাংকের বেতন ভাতাদি জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুসারেই নির্ধারিত হয়।

ব্যাংকের কর্তাব্যক্তিদের বেতন ভাতাদি ২০২২ । সবচেয়ে বেশি এবং সবচেয়ে কম বেতন পান কোন ব্যাংকের এমডি?

ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম বেতন পান সরকারি খাতের রূপালী ব্যাংকের এমডি। গত বছর এ ব্যাংকের এমডি প্রতি মাসে পেয়েছেন ৬৮ হাজার ৮৩০ টাকা। আগের বছরে এমডির বেতন বাবদ খরচ ছিল ৫৭ হাজার ৭৮০ টাকা। রূপালী ও রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক ছাড়া অন্য কোনো ব্যাংকের এমডির বেতন লাখ টাকার নিচে নেই।

রূপালী ব্যাংকের এমডি তাদের নিয়মিত কর্মকর্তা। তিনি পে-স্কেল অনুসারে বেতন পান। যেহেতু সরকারি বাসায় তিনি থাকেন, সেহেতু বাসা ভাড়াও পান না। অন্য সব ব্যাংকে চুক্তিভিত্তিক এমডি থাকায় এমডির বেতন বাবদ তাদের খরচ অনেক বেশি।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেতন পান ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের এমডি। গত বছর তিনি প্রতি মাসে পেয়েছেন ১২ লাখ ৮৮ হাজার টাকা। তার আগের বছর পেয়েছিলেন ১২ লাখ ৭৯ হাজার টাকা। প্রতি মাসে সাড়ে ১২ লাখ টাকার বেশি বেতন পান মিউচুয়াল ট্রাস্ট ও দি সিটি ব্যাংকের এমডি।

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের এমডি গত বছরে প্রতি মাসে ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং আগের বছরে ১১ লাখ ৭০ হাজার টাকা করে নিয়েছেন। তবে আগের বছরের তুলনায় গত বছরে এমডির বেতন-ভাতা বাবদ ব্যয় কমেছে সিটি ব্যাংকের। গত বছরে ব্যাংকটি প্রতি মাসে বেতন দিয়েছে ১২ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। ২০১৩ সালে দিয়েছিল ১৪ লাখ ৬৯ হাজার টাকা।

ব্যাংকের এমডিকে বেতন দিতে পঞ্চম স্থানে আছে ব্যাংক এশিয়া। গত বছর ব্যাংকটি তার এমডিকে প্রতি মাসে ১১ লাখ ৭৯ হাজার টাকা বেতন-ভাতা দিয়েছে। আগের বছর এ বাবদ তাদের খরচ ছিল ১০ লাখ ৮৩ হাজার। আগের বছরের তুলনায় এমডির বেতন বাবদ ব্যাংকটির মাসিক ব্যয় বেড়েছে ৯৫ হাজার টাকা।
এছাড়া ১১ লাখ টাকার বেশি বেতন পেয়েছেন ব্র্যাক ও আইএফআইসি ব্যাংকের এমডি। গত বছর এমডিকে প্রতি মাসে ১১ লাখ সাড়ে ৪৮ হাজার টাকা বেতন দিয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। আগের বছর তারা এ খাতে খরচ করে ১০ লাখ সাড়ে ৭৯ হাজার টাকা। আর গত দুই বছর প্রতি মাসে ১১ লাখ ৩৮ হাজার টাকা করে এমডিকে বেতন দিয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক।

এমডিদের ১০ লাখ টাকার বেশি কিন্তু ১১ লাখ টাকার কম বেতন দিচ্ছে মার্কেন্টাইল, ওয়ান ব্যাংক, আইসিবি ইসলামিক, এবি ও উত্তরা ব্যাংক। ২০১৪ সালে প্রতি মাসে এমডিকে ১০ লাখ সাড়ে ৯৮ হাজার টাকা বেতন-ভাতা দিয়েছে মার্কেন্টাইল ব্যাংক। আগের বছর এই খরচ ছিল ৯ লাখ সাড়ে ৪৫ হাজার টাকা। এক বছরের ব্যবধানে এমডির মাসিক বেতন বেড়েছে ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।

ওয়ান ব্যাংকের এমডি প্রতি মাসে বেতন-ভাতা নিয়েছেন ১০ লাখ ৯২ হাজার টাকা। আগের বছর খরচ ছিল ১০ লাখ ৮৩৬ টাকা। উত্তরা ব্যাংকের এমডি মাসিক বেতন-ভাতা পাচ্ছেন ১০ লাখ ৬৯ হাজার টাকা। ২০১৩ সালে ছিল ৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

গত বছর প্রতি মাসে আইসিবি ইসলামী ব্যাংকের এমডি বেতন-ভাতা হিসেবে নিয়েছেন ১০ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। তার আগের বছর বেতন পেতেন ৬ লাখ ৪৯ হাজার টাকা। এক বছরের ব্যবধানে বেতন-ভাতা বেড়েছে ৪ লাখ ১৭ হাজার টাকা।

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক এমডিকে ৯ লাখ ৬৪ হাজার টাকা করে প্রতি মাসে বেতন-ভাতা দিয়েছে গত বছর। আগের বছর বেতন ছিল ৯ লাখ ১৯ হাজার টাকা। এক্সিম ব্যাংক গত বছর প্রতি মাসে এমডির বেতন-ভাতা বাবদ ৮ লাখ ৪৬ হাজার টাকা খরচ করেছে। আগের বছর এই খরচ ছিল ৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকা।
এমডি পরিবর্তন করায় এবার মাসিক ব্যয় ২ লাখ ৭৪ হাজার টাকা কমেছে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের। গত বছর ব্যাংকটি এমডিকে প্রতি মাসে ৯ লাখ ৫৫ হাজার টাকা দিয়েছে। তার আগের বছর এ খরচ ছিল ১২ লাখ ২৯ হাজার টাকা।

সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক এমডিকে প্রতি মাসে ৭ লাখ ৪১ হাজার টাকা বেতন দিয়েছে। আগের বছর ছিল ৭ লাখ ১৭ হাজার টাকা। ইসলামী ব্যাংক এমডিকে গত বছর প্রতি মাসে ৭ লাখ টাকা করে বেতন দিয়েছে, আগের বছরে যা ছিল ৬ লাখ ১০ হাজার টাকা। এক বছরের ব্যবধানে বেতন বেড়েছে ৯০ হাজার টাকা।
এমডির বেতন-ভাতায় খরচ কমেছে ন্যাশনাল ব্যাংকের। এমডি পরিবর্তন করায় ৮ লাখ ৬১ হাজার টাকা থেকে কমে গত বছর প্রতি মাসে ৫ লাখ ৫৬ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। ঢাকা ব্যাংকের এমডির বেতন বাবদ খরচ প্রতি মাসে ১০ লাখ ২৮ হাজার টাকা থেকে কমে ৬ লাখ ৫ হাজার টাকা হয়েছে। এমডির বেতন বাবদ মাসিক খরচ কমেছে ৪ লাখ ২৩ হাজার টাকা।

প্রাইম ব্যাংক ২০১৪ সালে প্রতি মাসে এমডির বেতন দিত ৭ লাখ ২২ হাজার টাকা। আগের বছর দিত ৯ লাখ ৬৫ হাজার টাকা। ৯ লাখ ৭৫ হাজার টাকা থেকে সামান্য কমিয়ে গত বছর এমডিকে ৯ লাখ ৫৮ হাজার টাকা বেতন দিয়েছে পূবালী ব্যাংক। এমডির বেতন বাবদ খরচ হাজার পাঁচেক টাকা কমেছে ট্রাস্ট ব্যাংকের। ৮ লাখ ৫৭ হাজার টাকা থেকে কমে গত বছর প্রতি মাসে ৮ লাখ ৫২ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। ব্যাংকগুলো বোনাস কম দেওয়ার কারণেও এমনটি হয়েছে।

প্রিমিয়ার ব্যাংক গত বছর এমডিকে ৮ লাখ ১৬ হাজার টাকা, সাউথইস্ট ৭ লাখ ৮৭ হাজার, স্ট্যান্ডার্ড ৬ লাখ ৮৫ হাজার ও ইউসিবি প্রতি মাসে ৯ লাখ ৪৩ হাজার হাজার টাকা বেতন দিয়েছে।
ব্যাংকগুলোর মধ্যে এমডিদের বেতন সবচেয়ে বেশি বাড়িয়েছে বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক। গত বছর প্রতি মাসে ৫ লাখ ৩০ হাজার টাকা বেতন দিয়েছে ব্যাংকটি, ২০১৩ সালের চেয়ে যা ১ লাখ ৩৮ হাজার টাকা বেশি।

যমুনা ব্যাংক ৮ লাখ ৪২ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৯ লাখ ৮ হাজার , ডাচ্-বাংলা ৭ লাখ ৯৭ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৮ লাখ ৯৬ হাজার এবং এনসিসি ব্যাংক এমডির বেতন ৭ লাখ ৪০ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৭ লাখ ৬৭ হাজার টাকা করেছে।

নতুন কার্যক্রমে আসা ৯ ব্যাংকের মধ্যে এমডিকে সবচেয়ে বেশি ৮ লাখ ৬১ হাজার টাকা দিচ্ছে এনআরবি ব্যাংক। এরপরে ৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা বেতন দিচ্ছে এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক। এ ছাড়া এনআরবি কমার্শিয়াল ৭ লাখ ৯২ হাজার টাকা, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংক ৭ লাখ ৮৩ হাজার, ফারমার্স ব্যাংক ৭ লাখ ৫৬ হাজার, মিডল্যান্ড ৭ লাখ ৩৪ হাজার, ইউনিয়ন ব্যাংক ৭ লাখ ৩৩ হাজার ও মধুমতি ব্যাংক ৬ লাখ ৯৩ হাজার টাকা এমডিকে বেতন দিয়েছে।

নতুন বাংকের মধ্যে সবচেয়ে কম ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা বেতন পাচ্ছেন মেঘনা ব্যাংকের এমডি।
রাষ্ট্রায়ত্ত আট ব্যাংকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বেতন পান সোনালী ব্যাংকের এমডি। গত বছর প্রতি মাসে বেতন নিয়েছেন ৬ লাখ ৮৮ হাজার টাকা। আগের বছরের তুলনায় মাসিক বেতন প্রায় ৮৫ হাজার টাকা বেড়েছে। ২০১৩ সালে পেতেন ৬ লাখ ৩ হাজার টাকা।

অগ্রণী ব্যাংকের এমডির বেতন-ভাতা বাবদ গত বছর প্রতি মাসে পেয়েছেন ৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকা। আগের বছর এ বাবদ মাসিক খরচ ছিল প্রায় ৮ লাখ টাকা। জনতা ব্যাংকের এমডির বেতন-ভাতা বাবদ খরচ ৯ লাখ ৪৫ হাজার থেকে কমে গত বছর ৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা হয়েছে।

গত বছর বেসিক ব্যাংকের এমডি বেতন-ভাতা নিয়েছেন ৫ লাখ টাকার বেশি। প্রতি মাসে ৬ হাজার টাকা খরচ কমেছে কৃষি ব্যাংকেরও। গত বছর ব্যাংকটি এমডিকে ১ লাখ ৬ হাজার টাকা বেতন দিয়েছে। আগের বছর দিয়েছিল ১ লাখ সাড়ে ১২ হাজার টাকা করে।

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকের বেতন কি কম?
জি। বেসরকারি ব্যাংকের তুলনায় অনেক কম। এ ছাড়া রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের এমডির বেতন-ভাতা বাবদ মাসিক খরচ ২ লাখ ৯৬ হাজার টাকা, আগের বছর ছিল ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা। রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের এমডি গত বছর ৭৪ হাজার ১৩৫ টাকা মাসিক বেতন নিয়েছেন। আগের বছর নিয়েছেন ৫৮ হাজার ১৩৫ টাকা ৷

Side banner