বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে নতুন খবর

জীবন যাপন আগস্ট ৯, ২০২৩, ০২:২১ পিএম
চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে নতুন খবর

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি থেকে দ্রুতই শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার কাজ সম্পন্ন করার উদ্যোগ নিয়েছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। রিটের কারণে আটকে থাকা নিয়োগপ্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত ও সহায়তা চেয়েছে এনটিআরসিএ। এই মতামত ইতিবাচক হলে নিয়োগের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমতি চাইবে প্রতিষ্ঠানটি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এনটিআরসিএর চেয়ারম্যান এনামুল কাদের খান বলেন, একজন প্রার্থীর রিটের কারণে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি থেকে নিয়োগ স্থগিত আছে। এটির সমাধানে সহায়তা ও মতামত চেয়ে আমরা আইন মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছি। ইতিবাচক মতামত পেলে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি থেকে শিক্ষকদের দ্রুত নিয়োগ দিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় তথা সরকারের কাছে আবেদন করা হবে। তবে আবেদনের আগে আইন মন্ত্রণালয় কী বলে, তা দেখতে হবে।

এনটিআরসিএ জানায়, চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে এক প্রার্থী নিকটস্থ প্রতিষ্ঠানে নিয়োগের সুপারিশ না পাওয়ার কারণে রিট করেছেন। অথচ সেই প্রার্থীর সমস্যা তারা সমাধান করে দিয়েছে। কিন্তু এর মধ্যেই রিট হয়ে গেছে। এখন সেই প্রার্থীও নিজের ভুল বুঝতে পেরেছেন। এটির কারণে নিয়োগে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এবারই নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া চাকরিপ্রার্থীদের কর্মস্থলে যোগদান সহজ ও দ্রুত করতে এনটিআরসিএ অনলাইন ভেরিফিকেশন চালু করে। ইতিমধ্যে ভি-রোল ফরম পূরণ শেষও হয়ে গেছে। কিন্তু নিয়োগপ্রক্রিয়া শেষ না হওয়ায় হতাশ চাকরিপ্রার্থীরা।

এনটিআরসিএ সূত্র জানায়, চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে নিয়োগের সুপারিশ পাওয়া প্রার্থীরা অনেক দিন ধরে এই নিয়োগ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত আছেন। প্রথমে প্রিলিমিনারি, পরে লিখিত ও সবশেষ মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে পাস করেছেন। এরপর পছন্দের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আবেদন ও সেখানে খালি থাকা সাপেক্ষে নিয়োগের সুপারিশ পেয়েছেন। দীর্ঘ এই সময়ে তাঁরা অনেক ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছেন। তাই নিয়োগ পাওয়ার এই শেষ অবস্থায় প্রার্থীদের নিয়োগ দ্রুত শেষ করার কথা ভাবছে এনটিআরসিএ।


শিক্ষক নিয়োগের চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তিতে নির্বাচিত ৩২ হাজার ৪৩৮ প্রার্থীর চূড়ান্ত নিয়োগের আগে পুলিশ ভেরিফিকেশন সহজ করার জন্য এবার ভি-রোল ফরম অনলাইনে পূরণ করার উদ্যোগ নিয়েছে এনটিআরসিএ। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এবার নির্বাচিত প্রার্থীদের পুলিশ ভেরিফিকেশন অনলাইনে করার কারণে অল্প সময়েই নিয়োগ পাবেন নির্বাচিত প্রার্থীরা। ২০২২ সালের ২১ ডিসেম্বর ৬৮ হাজার ৩৯০ শিক্ষক নিয়োগের চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ।

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয় ২০১৯ সালের ২৩ মে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয় ওই বছরেরই ৩০ আগস্ট, ফলাফল প্রকাশ করা হয় ৩০ সেপ্টেম্বর। লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ১৫ ও ১৬ নভেম্বর। সর্বোচ্চ দুই মাসের মধ্যে লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের কথা থাকলেও তা প্রকাশ করা হয় এক বছর পর, ২০২০ সালের ১১ অক্টোবর। লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশের এক বছরের বেশি সময় পর ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর ১৬তম নিবন্ধনের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হয়।

Side banner