বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

দুধে ভেজাল মেশানো আছে কিনা বাড়িতেই পরীক্ষা করা সম্ভব

জীবন যাপন ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৩, ১০:০০ এএম
দুধে ভেজাল মেশানো আছে কিনা বাড়িতেই পরীক্ষা করা সম্ভব

আজকাল পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার দুধে নানা ভেজাল মেশায় এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী। দুধের সঙ্গে কখনও পানি, কখনও অন্য কোনও ক্ষতিকারক উপাদান মিশিয়ে দুধের পরিমাণে বাড়ানো হচ্ছে। আর তার সরাসরি প্রভাব পড়ছে শরীরের উপর। সেই সঙ্গে বাড়ছে নানা রোগ-ব্যাধির আশঙ্কাও।

তবে বাজারজাত সব দুধেই যে ভেজাল মেশানো থাকে, তা নয়। তবে এই বিষয়ে নিশ্চিত হতে একবার পরীক্ষা করে দেখে নেওয়া উচিত যে দুধে ভেজাল মেশানো আছে কিনা। আর এই পরীক্ষা বাড়িতেই করা সম্ভব। ভারতীয় গণমাধ্যম 'এই সময়ে' জানানো হয়েছে সেই পদ্ধতির কথা।
 
দুধে পানি মেশানো হলে : দুধে অনেকেই পানি মেশান। এতে কারও শরীরের তেমন একটা ক্ষতি না হলেও দুধের পুষ্টিগুণ যে কমে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। তাই এমন ধরনের ভেজাল দুধ খেয়েও কোনও উপকার মেলে না।

দুধে পানি মেশানো আছে কিনা, তা বোঝার সহজ একটা উপায় আছে। ছোট একটা বাটিতে অল্প পরিমাণে দুধ নিয়ে কোনও ঢালু জায়গায় ফেলুন। দুধ যদি খুব তাড়াতাড়ি গড়িয়ে যায়, তাহলে বুঝবেন তাতে একটু বেশি মাত্রাতেই পানি মেশানো আছে। কারণ খাঁটি দুধ এত তাড়াতাড়ি গড়িয়ে যায় না।

আরেকভাবেও দুধে পানি মেশানো আছে কিনা, তা বুঝে ফেলা সম্ভব। এক্ষেত্রে অল্প একটু দুধ চকচকে, ঢালু জায়গায় ফেলুন। দুধে যদি পানি মেশানো না থাকে, তাহলে তা দুধ গড়িয়ে যাওয়ার সময় দাগ ছেড়ে যাবে। আর যদি দুধ কম, পানি বেশি থাকে, তাহলে কোনও দাগই হবে না।

দুধে ডিটারজেন্টও মেশানো থাকে: অনেকে দুধে ডিটারজেন্টও মেশান। এই পরীক্ষার জন্য ৫-১০ মিলি দুধে সম পরিমাণে পানি মিশিয়ে ভালো করে একটু নাড়িয়ে নিন। মিনিট খানেক বাদে যদি দেখেন দুধের উপরের অংশে সাবানের ফেনার মতো তৈরি হয়েছে তাহলে বুঝবেন আপনি ভেজাল দুধ কিনে এনেছেন।

দুধে অনেকেই মেশান 'ইউরিয়া' : দুধ কিনে আনার পর তাতে ইউরিয়া মেশানো আছে কিনা, সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়াটা জরুরি। একটা পাত্রে অল্প পরিমাণে দুধ নিয়ে তাতে পরিমাণ মতো সোয়াবিন পাউডার মিশিয়ে নিন। কিছু সময় পর মিশ্রণটা ভালো করে নাড়িয়ে নিয়ে তাতে একটা লিটমাস পেপার চুবিয়ে দিন। যদি দেখেন লিটমাস পেপারটা ধীরে ধীরে নীল রঙের হয়ে যাচ্ছে, তাহলে বুঝতে হবে তাতে ইউরিয়া মেশানো রয়েছে।

Side banner